সোমবার, ১৯ মার্চ, ২০১২

ইন্টারনেটে সহজে টাকা আয়ের জন্য mybrowsercash

খুব সহজে ইন্টারনেট থেকে টাকা আয়ের একটি পদ্ধতি মাই ব্রাউজার ক্যাশ। মুলত কোন কাজ না করে টাকায় করার একটি পদ্ধতি। সদস্য হওয়ার জন্য আপনাকে আগে টাকা দিতে হচ্ছে না।


তাদের পদ্ধতি খুব সহজ। তাদের সাইটে গিয়ে সদস্য হবেন। তাদের লিংক থেকে বিনামুল্যের সফটঅয়্যার ডাউনলোড করে ইনষ্টল করবেন এবং সেটা ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্রাউজ করবেন।
ব্রাউজ করে আয় বলা হলেও এটা এক ধরনের পিটিসি সাইট। অন্যান্য পিটিসি থেকে এর পার্থক্য হচ্ছে ক্লিক করার জন্য তাদের সাইটে ঢোকা প্রয়োজন নেই, সাধারন ব্রাউজার ব্যবহারের সময় বিজ্ঞাপন দেখা যাবে। অবশ্য সেগুলি এমনভাবে দেয়া হয় যার ফলে আপনার স্বাভাবিক ব্রাউজিং কাজে সমস্যা না হয়। টাস্কবারে ডলার চিহ্নসহ বিজ্ঞাপন দেখা যাবে। যখন সময় পাবেন সেই বিজ্ঞাপনগুলি দেখবেন, বিনিময়ে আপনি টাকা পাবেন। কখনো কখনো অতিরিক্ত বিজ্ঞাপন পেজ আসতে পারে। আপনি ইচ্ছে করলে সেগুলি দেখতে পারেন, ইচ্ছে করলে বাদ দিতে পারেন। নিয়ম হচ্ছে বিজ্ঞাপনে ক্লিক করার পর বিজ্ঞাপনের পেজ ওপেন হলে সেখানে কয়েক সেকেন্ড থাকতে হবে (সাধারনত ৩ সেকেন্ড) অথবা অন্তত একটি লিংকে ক্লিক করতে হবে। ফরম পুরন করা বা কিছু ডাউনলোড করার বিষয় থাকলে সেজন্য বেশি টাকা পাবেন।

তারা টাকা দেয় মুলত বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে পাওয়া টাকা থেকে। কোন কোন ক্ষেত্রে এই টাকার পরিমান বিজ্ঞাপনের শতকরা ৪৫ ভাগ যা যথেস্ট বড় অংক হতে পারে।
সাধারনভাবে এতে আয়ের পরিমান অন্যান্য সহজ আয়ের পদ্ধতির মতই কম। বিজ্ঞাপন দেখা ছাড়াও আরো বেশকিছু আয়ের পদ্ধতি রয়েছে। যেমন তাদের এফিলিয়েশন প্রচার করে আয় করতে পারেন। তারা যে আয় করবে তার অংশ আপনি পাবেন। এছাড়া তাদের বিশেষ অফার থাকে যা পুরন করলে ২৫ ডলার পর্যন্ত পেতে পারেন।

বৈধ নাকি ভুয়া
এধরনের সাইট সম্পর্কে সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ন প্রশ্ন কাজ করে টাকা পাওয়া যাবে কি-না। এই পদ্ধতি চালু আছে অনেকদিন ধরে। যারা কাজ করছেন তারা বলছেন টাকা পেতে সমস্যা হয় না। অনেকে এভাবে দিনে ৫ ডলার আয় করে আয় হওয়া সন্তুষ্ট।
টাকা পাওয়ার জন্য কমপক্ষে ২০ ডলার আয় করতে হয়। তারা টাকা দেয় পেপল এবং এলার্ট-পে এর মাধ্যমে। আয়ের টাকা জমা করে বিনামুল্যের সদস্য থেকে সিলভার বা গোল্ড মেম্বার হয়ে আয় আরো বাড়ানো যায়। ফায়ারফক্স, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার এবং ক্রোম ভালভাবে বিজ্ঞাপন দেখায় বলে এগুলি ব্যবহার করলে আয় বেশি হয়।
এর ব্যবহার সহজ। তাদের সাইটে গিয়ে নিজের তথ্য দিয়ে সদস্য হোন। সফটঅয়্যারটি ডাউনলোড করে ইনষ্টল করুন। ব্রাউজারে তাদের একটি পেজ ওপেন হবে। সেখানে ইমেইল এড্রেস এবং পাশওয়ার্ড দিন। আপনার একাউন্টের সাথে ব্রাউজার লিংক তৈরী হবে। এরপর স্বাভবিকভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার করুন।
টাস্কবারে ডলার চিহ্ন থেকে বিজ্ঞাপন দেখা যাবে। সেখানে ক্লিক করে, কিছু ডাউনলোড করে ইত্যাদির মাধ্যমে টাকা আয় করবেন।
যদি এধরনের সহজ আয়ের যায়গা খোজ করেন তাহলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

সদস্য হওয়ার জন্য : http://www.mybrowsercash.com/

তাদের ফরম পুরন করার পর আপনার ইমেইল চেক করুন এবং ভেরিফিকেশন লিংকে ক্লিক করুন। সরাসরি ইমেইল না পেলে স্ক্যাম ফোল্ডার দেখুন, এধরনের মেইল অনেক সময় সরাসরি সেখানে চলে যায়।
আগেই বলা হয়েছে, সাইটটি পরিক্ষিত। ব্যবহার করতে সমস্যা নেই।


দ্রুত বেশি টাকা আয়ের নিয়মগুলি আরেকবার জেনে নিন;

১. তাদের সাইটে গিয়ে সদস্য হোন।
২. তাদের লিংক থেকে সফটঅয়্যারটি ডাউনলোড করে ইনষ্টল করুন।
৩. তাদের সাইটে ঢুকে হোম পেজে Complete offers for cash ক্লিক করুন। এখানে নিচের দিকে কুইক ক্যাটাগরি সিলেক্ট করুন। সেখানে আপনাকে বলে দেয়া হবে কোন ধরনের কাজ সবচেয়ে সহজ। একাউন্টে ৫ ডলার জমা হওয়া পর্যন্ত সেকাজ করুন। যেমন ধরুন কিছু ডাউনলোড করা। কোন সফটঅয়্যার বা গেম ডাউনলোড করলে টাকা পাবেন। ডাউনলোড করার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার কম্পিউটারে সেটা ইনষ্টল করা নেই। থাকলে আগে সেটা আন-ইনষ্টল করে নিন। এভাবে একই সফটঅয়্যার বারবার ইনষ্টল করে টাকা পেতে পারেন। কোন কোন অফার কোন কোন দেশে কাজ নাও করতে পারে।
৪. একাউন্টে ১ ডলার জমা হলেই লিংক থেকে সেটা ট্রান্সফার করুন এবং রেফারেল কিনুন। এরফলে আয় আরো বৃদ্ধি পাবে।
৫. ইচ্ছে করলে আয়ের টাকায় সদস্যপদ আপগ্রেড করতে পারেন। এতে আয় আরো বৃদ্ধি পাবে।
৬. স্বাভাবিকভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে থাকুন। শতকরা ৮০ ভাগ বিজ্ঞাপন মাইব্রাউজারক্যাশ নামে পাবেন, বাকি ২০ ভাগ আপনি হয়ত লক্ষ করবেন না। যদিও সেগুলি থেকেও আয় পাওয়া যাবে।
৭. তাদের সাইটে পিটিসি লিংক থেকে বিজ্ঞাপনে ক্লিক করা যায়। সেটা করলে পপ-আপ বিজ্ঞাপন কমে যাবে। পপ-আপ বিজ্ঞাপনে আয় বেশি কাজেই নিতান্ত প্রয়োজন না হলে এভাবে ক্লিক করবেন না। মুলত যাদের সফটঅয়্যার ইনষ্টল করতে সমস্যা হয় তারা এটা ব্যবহার করেন (যেমন এপল কিংবা মোবাইল ফোন)।