সোমবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১২

কেন্দ্রীয় ব্যাংক কি? এর কাজই বা কি?

কেন্দ্রীয় ব্যাংক
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক দেশের আর্থিক ও ব্যাংকিং কাঠামোর শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান, যা-
১.দেশে নোট ও মুদ্রার প্রচলন করে
২.বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চিতি সংরক্ষণ করে
৩.মুদ্রানীতি প্রণয়ন ও ব্যবস্থাপনা করে
৪.তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর রিজার্ভ সংরক্ষণ করে
৫.দেশের মুদ্রা বাজার গঠন, পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ করে
৬.দেশের ঋণের পরিমাণ কাম্যস্তরে বজায় রাখে
৭.দেশের অর্থনীতিতে সমতা বিধান ও মূল্যস্তর স্তিতিশীল রাখে
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক হলো ঋণের সর্বশেষ আশ্রয়স্থল- অধ্যাপক হট্টে
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক হলো একটি ঋণ নিয়ন্ত্রণকারী ব্যাংক- অধ্যাপক শ’

কেন্দ্রীয় ব্যাংক
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক দেশের আর্থিক ও ব্যাংকিং কাঠামোর শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান, যা-
দেশে নোট ও মুদ্রার প্রচলন করে
বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চিতি সংরক্ষণ করে
মুদ্রানীতি প্রণয়ন ও ব্যবস্থাপনা করে
তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর রিজার্ভ সংরক্ষণ করে
দেশের মুদ্রা বাজার গঠন, পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ করে
দেশের ঋণের পরিমাণ কাম্যস্তরে বজায় রাখে
দেশের অর্থনীতিতে সমতা বিধান ও মূল্যস্তর স্তিতিশীল রাখে
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক হলো ঋণের সর্বশেষ আশ্রয়স্থল- অধ্যাপক হট্টে
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক হলো একটি ঋণ নিয়ন্ত্রণকারী ব্যাংক- অধ্যাপক শ’

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মালিকানা

  • সরকারি মালিকানা ও ব্যবস্থাপনায়
  • বেসরকারি মালিকানায়
  • সরকারি ও বেসরকারি যৌথ মালিকানায়
  • বাণিজ্যিক ব্যাংকের মালিকানায়
  • সরকারি ও বাণিজ্যিক ব্যাংকের মালিকানায়
  • সরকারি, বেসরকারি ও বাণিজ্যিক ব্যাংকের মালিকানায়

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক, প্রতিষ্ঠার সাল ও মুদ্রার নাম :

দেশের নাম
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নাম প্রতিষ্ঠার সাল মুদ্রার নাম
সুইডেন দি রিকস ব্যাংক অব সুইডেন ১৬৫৬ ক্রোনার
যুক্তরাজ্য ব্যাংক অব ইংল্যান্ড ১৬৯৪ পাউন্ড স্টালিং
ফ্রান্স ব্যাংক অব ফ্রান্স ১৮০০ ফ্রাঁ (ইউরো)
নেদারল্যান্ডস দি ব্যাংক অব নেদারল্যান্ডস ১৮১৪ গিল্ডার (ইউরো)
ডেনমার্ক দি ন্যাশনাল ব্যাংক অব ডেনমার্ক ১৮১৮ ক্রোনার
স্পেন ব্যাংক অব স্পেন ১৮৫৬ পেসোটা (ইউরো)
জাপান ব্যাংক অব জাপান ১৮৮২ ইয়েন
ইতালি ব্যাংক অব ইতালি ১৮৯৩ লিরা (ইউরো)
সুইজারল্যান্ড দি সুইস ন্যাশনাল ব্যাংক ১৯০৭ সুইস ফ্রাঙ্ক
যুক্তরাষ্ট্র দি ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেম ১৯১৩ ডলার
রাশিয়া দি গস ব্যাংক (পূর্ব নাম- ব্যাংক অব রাশিয়া) ১৯১৭ রুবল
চিন ব্যাংক অব চায়না ১৯২৮ উয়ান
তুরস্ক সেন্ট্রাল ব্যাংক অব রিপাবলিক অব টার্কি ১৯৩১ লিরা
কানাডা ব্যাংক অব কানাডা ১৯৩৪ কানাডিয়ান ডলার
ভারত রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ১৯৩৫ রূপি
ব্রাজিল ব্যাংকোডা ব্রাজিল ১৯৪১ ক্রাজিরো
পাকিস্তান স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তান ১৯৪৮ রূপি
বাংলাদেশ বাংলাদেশ ব্যাংক ১৯৭২ টাকা
জার্মানি ওয়েন্ডার্সবার্গ ১৯৯৩ জার্মান মার্ক (ইউরো)

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মালিকানার ধরন :

দেশের নাম
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মালিকানার ধরন
বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, চিন, ভারত, রাশিয়া, ফ্রান্স, কানাডা সরকারি মালিকানা ও ব্যবস্থাপনা
জাপান, দক্ষিণ আফ্রিকা বেসরকারি মালিকানা
পাকিস্তান, মেক্সিকো সরকারি ও বেসরকারি যৌথ মালিকানা
ব্যাংক অব ইতালি, ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেম (১২টি ব্যাংকের সমন্বয়ে গঠিত) বাণিজ্যিক ব্যাংকের মালিকানা
পেরু, চিলি সরকার ও বাণিজ্যিক ব্যাংকের মালিকানা
ব্যাংক অব আর্জেন্টিনা সরকারি, বেসরকারি ও বাণিজ্যিক ব্যাংকের মালিকানা

কেন্দ্রীয় ব্যাংকে তালিকাভুক্তির শর্তাবলি (অন্যান্য ব্যাংকের জন্য)
  • ন্যূনতম পরিশোধিত মূলধন ও সংরক্ষিত তহবিল থাকতে হবে। (বাংলাদেশে ব্যাংক কোম্পানির ন্যূনতম আদায়কৃত মূলধন ও সংরক্ষিত তহবিলের পরিমাণ ৪০০ কোটি টাকা, যার মধ্যে আদায়কৃত মূলধন হবে অন্যূন ২০০ কোটি টাকা।)
  • সংরক্ষিত জমার হার, যা চলতি ও স্থায়ী আমানতের উপর একটি নির্দিষ্ট অংশ কেন্দ্রীয় ব্যাংক নগদ জমা হিসেবে রাখতে হয়। (বাংলাদেশে এর হার ৫%)
  • মোট আমানতের নির্দিষ্ট অংশ তরল সম্পদ হিসেবে রাখতে হয়। (বাংলাদেশে এর হার ১৮%)
  • প্রতি নির্দিষ্ট সময় অন্তর আর্থিক বিবরণী প্রকাশ করতে হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাবলি :
  • CRR- Cash Reserve Requirement/Rate/Ratio (নগদ জমার হার/সংরক্ষিত জমার হার)- ৫%
  • SLR- Statutory Liquidity Rate/Requirement/Ratio (বিধিবদ্ধ জমার হার/বিধিবদ্ধ তারল্য)- ১৮%
  • Bank Rate/Minimum Lending Rate (ব্যাংক হার)- ৫%
  • বাংলাদেশ ব্যাংক কার্যক্রম শুরু করে- ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর
  • বাংলাদেশ ব্যাংকের ১ম গভর্নর- এন হামিদুল্লাহ
  • বাংলাদেশ ব্যাংকের ১০ম (বর্তমান) গভর্নর- ড: আতউর রহমান
  • বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা-৮টি
  • বাংলাদেশ ব্যাংকের লোকাল অফিস- ১টি
  • বাংলাদেশ ব্যাংক নোটের বিপরীতে রিজার্ভ রাখে- বৈদেশিক মুদ্রা
  • উপমহাদেশে ১ম কাগজের মুদ্রা চালু করেন- লর্ড ক্যানিং, ১৮৫৭ সালে
  • কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সর্বপ্রথম ও প্রধান দায়িত্ব হল- নোট ইস্যু
  • বাংলাদেশে ১ম নোট প্রচলন হয়- ৪ মার্চ ১৯৭২
  • বাংলাদেশে ১ম মুদ্রা প্রচলন হয়- ৫ মার্চ ১৯৭২
  • ব্যাংক নোট ইস্যু করে- বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংক নোটে স্বাক্ষর থাকে- বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের
  • ব্যাংক নোট- বিহিত মুদ্রা
  • ব্যাংক নোটের উদাহরণ- ৫, ১০, ২০, ৫০, ১০০, ৫০০ ও ১০০ টাকার নোট
  • সরকারি নোট ইস্যু করে- বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়
  • সরকারি নোটে স্বাক্ষর থাকে- অর্থ সচিবের
  • সরকারি নোট- আইনসম্মত মুদ্রা
  • সরকারি নোটের উদাহরণ- ১, ২ টাকার নোট
  • ৫ টাকার কয়েনকে বলা হয়- ব্যাংক কয়েন
  • ১ ও ২ টাকার কয়েনকে বলা হয়- সরকারি কয়েন
  • বিশ্বের ১ম নিকাশ ঘর ব্যবস্থার প্রচলন করে- ব্যাংক অব ইংল্যান্ড (১৭৭৩ সালে)
  • আধুনিক নিকাশ ঘরের উৎপত্তি- ১৭৭৫ সালে ‘লন্ডন নিকাশ ঘর’ উৎপত্তির মাধ্যমে
  • বাংলাদেশে নিকাশ ঘরের দায়িত্ব পালন করে- বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ACU-এর পূর্ণরূপ- Asian Clearing Union
  • ACU-এর সদস্য দেশ- ৯টি (বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মায়ানমার, মালদ্বীপ, ইরান ও ভুটান)
  • ACU গঠিত হয়- ৯ ডিসেম্বর ১৯৭৪
  • ACU-এর সদর দপ্তর- তেহরান
  • ACU-এর অন্তর্ভুক্ত সার্কভুক্ত দেশ- ৭টি (আফগানিস্তান সদস্য নয়)
  • বাংলাদেশে নিকাশ ঘরের সংখ্যা- ৯টি
  • বাংলাদেশের যেসব স্থানে বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা নেই সেই সব স্থানে নিকাশ ঘরের দায়িত্ব পালন করে- সোনালী ব্যাংক
  • বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে অন্যান্য বাণিজ্যিক ব্যাংকের সাপ্তাহিক আর্থিক বিবরণী জমা দিতে হয়- বৃহস্পতিবার
  • চেক, বিল, হুন্ডি ইত্যাদির সমষ্টিকে বলা হয়- Articles
  • বাংলাদেশের পক্ষে বার্ষিক বৈদেশিক সাহয্যের পরিমাণ নির্ধারণ করে- BDF (Bangladesh Development Forum)
  • ব্যাংকিং বিষয়ক আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন কমিটিকে বলা হয়- ব্যাসেল
  • BIS- Bank for International Settlement
  • BIS হচ্ছে বিশ্বের সকল কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর ব্যাংক
  • সুইজারল্যান্ডের  Basic Basle শহরে BIS প্রতিষ্ঠিত হয়

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঋণ নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি

ক) সংখ্যাত্মক পদ্ধতি- ব্যাংক হার, খোলাবাজার নীতি ও নগদ জমার হার পরিবর্তন নীতি
খ) গুণগত পদ্ধতি- প্রত্যক্ষ প্রক্রিয়া, নৈতিক প্ররোচনা, ঋণের বরাদ্দকরণ, জামানতের প্রান্তিক হার নিয়ন্ত্রণ

ব্যাংক হার নীতি প্রচলন করে- Bank of England, ১৮৩৯ সালে
খোলা বাজার নীতি প্রচলন করে- Bank of England, ১৯১৪ সালে

জমার হার পরিবর্তন নীতি প্রচলন করে- Federal Reserve System, ১৯৩৩ সালে

ব্যাংক হার বাড়ালে যা ঘটবে ব্যাংক হার কমালে যা ঘটবে
সুদের হার বাড়বে সুদের হার কমবে
ঋণের প্রবাহ কমবে ঋণের প্রবাহ বাড়বে
সঞ্চয়ের হার বাড়বে সঞ্চয়ের হার কমবে
জনগণের ক্রয় ক্ষমতা কমবে জনগণের ক্রয় ক্ষমতা বাড়বে
দ্রব্য মূল্যস্তর কমবে দ্রব্য মূল্যস্তর বাড়বে
আমদানি কমবে আমদানি বাড়বে
রপ্তানি বাড়বে রপ্তানি কমবে