সোমবার, ২৭ জুন, ২০১১

বিজ্ঞান ভিত্তিক বিষয় -০২


ইলেকট্রনিক্স ,বিদ্যুৎ চুম্বকত্ব :
> অধিকাংশ ফটোকপি মেশিন কাজ করে কোন পদ্ধতিতে : পোলারয়েড ফটোগ্রাফি পদ্ধতিতে
> আধুনিক মুদ্রণ ব্যবস্থায় ধাতু নির্মিত অক্ষরের প্রয়োজন ফুরাবার বড় কারণ : ফটো লিথোগ্রাফি
> ডিজিটাল টেলিফোনের প্রধান বৈশিষ্ট্য : ডিজিটাল সিগন্যালে বার্তা প্রেরণ
> ডিজিটাল ঘড়ি বা ক্যালকুলেটরে কালচে অনুজ্জ্বল যে লেখা ফুটে উঠে তা কিসের ভিত্তিতে তৈরি : সিলিকন চিপ
> দূরের বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র হতে বিদ্যুৎ নিয়ে আসতে হলে হাইভোল্টেজ ব্যবহার করার কারণ : এতে বিদ্যুতের অপচয় কম হয়
> সাধারণ ষ্টোরেজ ব্যাটারিতে সিসার ইলেকট্রোডের সঙ্গে যে তরলটি ব্যবহৃত হয় তার নাম : সালফিউরিক এসিড
> আকাশে বিজলী চমকায় : মেঘের অসংখ্য পানি বরফ কণার মধ্যে চার্জ সঞ্চিত হলে
> বৈদ্যুতিক ইস্ত্রি এবং হিটারে ব্যবহৃত হয় : নাইক্রোম তার
> আবাসিক বাড়ির বর্তনীতে সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা হয় : অতিমাত্রায় বিদ্যুৎ প্রবাহজনিত দুর্ঘটনা রোধের জন্য
> বিদ্যুৎবাহী তারে পাখি বসলে সাধারণত বিদ্যুৎ স্পষ্ট হয় না কারণ : মাটির সঙ্গে সংযোগ হয় না
> তড়িৎশক্তি শব্দশক্তিতে রূপান্তরিত হয় কোন যন্ত্রের মাধ্যমে : লাউড স্পিকার
> সবচেয়ে শক্ত বস্তু : হীরা
> সাধারণ বৈদ্যুতিক বাল্বের ভিতরে সাধারণত ব্যবহিত গ্যাস : নাইট্রোজেন
> সৌরকোষের বিদ্যুৎ রাতেও ব্যবহার করা সম্ভব কিসের মাধ্যমে : ষ্টোরেজ ব্যাটারি
> সাধারণ ড্রাইসেলে ইলেকট্রোড হিসেবে থাকে : কার্বন দণ্ড দস্তার কৌটা
> বৈদ্যুতিক মটর এমন তড়িৎ শক্তিকে কোন শক্তিতে রুপান্তর করে : যান্ত্রিক শক্তিতে রূপান্তরিত করে
> বৈদ্যুতিক পাখা ধীরে ধীরে ঘুরলে বিদ্যুৎ খরচ : একই হয়
> রাডারে যে তড়িৎ চৌম্বক ব্যবহার করা হয় তার নাম : মাইক্রোওয়েব
> ক্যাসেট ফিতার শব্দ রক্ষিত হয় : চুম্বক হিসেবে
তাপ:
> রান্না করার হাড়িপাতিল সাধারণত এলুমিনিয়ামের তৈরি হয়প্রধান কারণ : এতে দ্রুত তাপ সঞ্চারিত হয়ে
> আকাশ মেঘলা থাকলে গরম বেশি লাগার কারণ : মেঘ পৃথিবীর পৃষ্ঠ হতে বিকীর্ণ তাপকে ওপরে যেতে বাধা দেয় বলে
> ফারেনহাইট সেলসিয়াস স্কেল তাপমাত্রায় সমান তাপমাত্রা নির্দেশ করে : ৪০০
> প্রেসার কুকারে রান্না করলে খাদ্যদ্রব্য তাড়াতাড়ি সিদ্ধ হয়: উচ্চচাপে তরলের স্ফুটনাংক বৃদ্ধির কারণে
> তাপ প্রয়োগে সবচেয়ে বেশি প্রসারিত হয় : বায়বীয় পদার্থ
> কোন রঙের কাপে চা তাড়াতাড়ি ঠাণ্ডা হয় : কালো
> ড্রাই আইস : কঠিন অবস্থার কার্বন ডাই-অক্সাইড
আলো 
> যে তিনটি মুখ্য বর্ণের সমন্বয়ে অন্যান্য সব বর্ণ সৃষ্টি করা যায়, সেগুলো হলো : লাল, সবুজ, নীল
> রাডারে যে তড়িৎ চৌম্বক ব্যবহার করা হয় তার নাম : মাইক্রোওয়েভ
> আকাশ নীল দেখায় : নীল আলোর বিক্ষেপণ অপেক্ষাকৃত বেশি বলে
> দৃশ্যমান বর্ণালীর ক্ষুদ্রতম তরঙ্গ দৈর্ঘ্য কোন রঙের আলোর : বেগুনী
> সিনেমা প্রজেক্টরে কোন ধরনের লেন্স ব্যবহৃত হয় : অবতল
> ভাঙা হাড় নির্ণয়ে ব্যবহৃত হয় : রঞ্জন রশ্মি
শব্দ:
> বাদুড় অন্ধকারে চলাফেরা করে : সৃষ্ট শব্দের প্রতিধ্বনি শুনে
> শব্দের তীব্রতা নির্ণয় করার যন্ত্রের নাম : অডিওমিটার
> লোকভর্তি হলঘরে শূন্য ঘরের চেয়ে শব্দ ক্ষীণ হয় এর কারণ : শূন্য ঘরে শব্দের শোষণ কম হয়
> শব্দের উৎপত্তির কারণ : বস্তুর কম্পন
> চাঁদে কোনো শব্দ করলে শোনা যাবে না : চাঁদে বাতাস নেই তাই
> সমুদ্রের গভীরতা নির্ণয় করা যায় : প্রতিধ্বনি
> কোন মাধ্যমে শব্দের গতি সবচেয়ে কম : শূন্য মাধ্যমে
> রেলওয়ে ষ্টেশনে আগমনরত ইঞ্জিনে বাঁশি বাজাতে থাকলে প্লাটফরমে দাঁড়ানো ব্যক্তির কাছে বাঁশির কম্পাঙ্ক অনুভূত হয় : আসলের চেয়ে বেশি হবে
> কি ধরনের শব্দ কানের ক্ষতি সাধন করে : তীব্র
> সমটানসম্পন্ন একটি টানা তারের দৈর্ঘ্য দ্বিগুণ করলে কম্পাঙ্কের পরিবর্তন ঘটবে : অর্ধেক হবে
> কোন সর্বোচ্চ শ্রুতিসীমার ওপরে মানুষ বধির হতে পারে : ১০৫ ডিবি
আধুনিক পদার্থবিজ্ঞান, বলবিদ্যা পদার্থের ধর্ম: 
> ফিউশন প্রক্রিয়ায় ঘটে : একাধিক পরমাণু যুক্ত নতুন পরমাণু গঠন করে
> লেজার রশ্মি আবিষ্কার করেন : মাইম্যান, ১৯৬০
> মহাজাগতিক রশ্মি আবিষ্কার করে কোন বিজ্ঞানী নোবেল পুরষ্কার পান : হেস
> রঙিন টেলিভিশন হইতে ক্ষতিকর কোন রশ্মি বের হয় : গামা রশ্মি
> আলট্রাসনোগ্রাফী : ছোট তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের শব্দ দ্বারা ইমেজিং
>  কাজ করার সামর্থ্যকে বলে : শক্তি
>  কোন ইঞ্জিনের নীতির সাথে মিলে ফুলানো বেলুনের মুখ ছেড়ে দিলে বাতাস বেরিয়ে যাবার সঙ্গে সঙ্গে বেলুনটি ছুটে যায় : রকেট ইঞ্জিন
>  নবায়নযোগ্য শক্তির উৎসের ১টি উদাহরণ : ফুয়েল সেল
বিজ্ঞান প্রযুক্তি:
> যে দেশে সবচেয়ে শক্তিশালী সৌরচুল্লী তৈরি করা হয়েছে : যুক্তরাষ্ট্রে
> ফটোইলেকট্রিক কোষের উপর আলো পড়লে উৎপন্ন হয় : বিদ্যুৎ
> লাল আলোতে নীল রংয়ের বস্তু দেখায় : কালো
> জারণ বিক্রিয়া ঘটে: ইলেক্ট্রন বর্জন
> বৈদ্যুতিক বালভের ফিলামেন্ট ধাতু দিয়ে তৈরি : টাংষ্টেন
> ধাতু পানি অপেক্ষা হালকা : সোডিয়াম
> বৈদ্যুতিক হিটার ইস্ত্রিতে কোন ধাতুর তার ব্যবহার করা হয় : নাইক্রোম
> পৃথিবীর প্রথম বাণিজ্যিক যোগাযোগ কৃত্রিম উপগ্রহ : আলিবার্ড হল
> পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহিত ধাতু : লোহা
> কি জন্য চাঁদ দিগন্তের কাছে অনেক বড় দেখায় : বায়ুমন্ডলীয় প্রতিসরণে
> প্রকৃতিতে প্রাপ্ত ইউরেনিয়ামে U-238 থাকে : ৯৯.২৮৪ ভাগ, U-235 থাকে .৭১১ ভাগ
> পারমাণবিক চুল্লীতে কোন মৌল জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত হয় : ইউরেনিয়াম-২৩৫
> এলিউমিনিয়াম(Aluminiam) সালফেটকে চলতি বাংলায় বলা হায় : ফিটকিরি
> পারমাণবিক চুল্লীতে তাপ পরিবাহক হিসেবে ব্যবহৃত ধাতু হল : সোডিয়াম
> প্রকৃতিতে প্রাপ্ত ইউরেনিয়াম ধাতুতে প্রধানত আইসোটোপ থাকে : দুটি (U-238 & U-235)
> কোন কোন স্থানে সলিড ফিনাইল ব্যবহার করা হয় : পায়খানা, প্রস্রাবখানা
> সুষম খাদ্যের উপাদান : ৬টি
> রোগজীবাণু তত্ত্বের উদ্ভাবন কারি বিজ্ঞানী : লুইপাস্তুর
> গ্রিন হাউজে গাছ লাগানো হয় : অত্যধিক ঠাণ্ডা থেকে রক্ষার জন্য
> সূর্য পৃষ্ঠের উত্তাপ : ৬০০০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড
> জোয়ারের কত সময় পর ভাঁটার সৃষ্টি হয় : ঘণ্টা ১৩ মিনিট