নির্বাচিত সংবাদ!

শনিবার, ১৮ জুন, ২০১১

বাংলাদেশ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান প্রস্তুতি-০১

বাংলাদেশ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান প্রস্তুতি :
> প্রাচীনকালে নোয়াখালী ও কুমিল্লাকে বলা হত : সমতট
> মুক্তিযুদ্ধের সময় মুজিবনগর ছিল : ৮নং সেক্টরের অধীনে
> যে সাহিত্যিক মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য বীরপ্রতীক খেতাব পান : আব্দুস সাত্তার
> ছিয়াত্তরের মনন্তর হয়েছিল : ১১৭৬ সালে (বাংলা)
> ইউরোপীয় বণিকদের মধ্যে প্রথম বাংলায় এসেছিল : পর্তুগীজরা
> বাংলার প্রথম স্বাধীন নরপতি : শশাঙ্ক
> বাংলাদেশের যে জেলায় পাট বেশি উৎপন্ন হয় : রংপুর
> যে সংশোধনীর মাধ্যমে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয় : অষ্টম
> বাংলাদেশের সংবিধান কার্যকর হয় : ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭২
> বাংলাদেশের প্রথম প্রধান নির্বাচন কমিশনার : বিচারপতি এম.ইদ্রিস
> সংবিধানের যে অনুচ্ছেদ বলে সরকারি কর্ম কমিশন গঠিত হয় : ১৩৭ অনুচ্ছেদ
> সরকারি কর্ম কমিশনের প্রথম মহিলা চেয়ারম্যান : ড. জিন্নাতুন্নেছা তাহমিদা বেগম
> বাংলাদেশের প্রথম নৌবাহিনীর রণতরী : বিএনএস পদ্মা
> বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় মনোগ্রামের ডিজাইনার : এ এনএ সাহা
> বাংলাদেশের সবচেয়ে উঁচু পাহাড় : গারো পাহাড়
> বাংলাদেশের একমাত্র মুসলমান উপজাতি : পাঙন
> আয়তনে বাংলাদেশের বড় থানা : শ্যামনগর, সাতক্ষীরা
> বাংলাদেশের পশ্চিমা বাহিনীর নদীবলা হয় : ডাকাতিয়া বিলকে
> শীতল পানির ঝরণা অবসি'ত : হিমছড়ি পাহাড়
> বাংলাদেশের প্রথম আদমশুমারী হয় : ১৯৭৪ সালে
> জীবনতরীহলো একটি : ভাসমান হাসপাতাল
> ময়নামতিরপূর্ব নাম : রোহিতগিরি
> বাংলার প্রাচীন জনপদের মধ্যে সবচেয়ে প্রাচীন জনপদ : পুন্ড্র
> বাংলাদেশে প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় : ৭ মার্চ ১৯৭৩ সালে
> বাংলাদেশের প্রথম মহিলা বিচারপতি : নাজমুন আরা সুলতানা
> মা ও মনিহলো : একটি ক্রীড়া প্রতিযোগীতার নাম
> বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমী অবসি'ত : কুমিল্লাতে
> বাংলাদেশের প্রথম জাদুঘর : বরেন্দ্র জাদুঘর, রাজশাহী
> বাংলাদেশের একমাত্র মৎস্য গবেষণা ইনষ্টিটিউট অবসি'ত : ময়মনসিংহে
> বাংলাদেশে গবাদি পশুতে প্রথম ভ্রুণ বদল করা হয় : ৫ মে ১৯৯৫
> বাংলাদেশের মানচিত্র প্রথম আঁকেন : মেজর জেমস রেনেল
> বাংলাদেশের যে দ্বীপে বাতিঘর আছে : কুতুবদিয়া
> বাংলার নাম জান্নাতাবাদ রাখেন : সম্রাট হুমায়ুন
> মুক্তিযুদ্ধকালে যে সেক্টরে কোন নিয়মিত সেক্টর কমান্ডার ছিল না : ১০ নং সেক্টর
> ঢাকা সেনানিবাস' মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘরের নাম : বিজয় কেতন
> সংসদের কাষ্টিং ভোট বলা হয় : স্পীকারের ভোটকে
> বাংলাদেশের একমাত্র সিকিউরিটি প্রিন্টিং প্রেস : গাজীপুর
> মুক্তিযুদ্ধের সময় ঢাকা শহর ছিল : ২নং সেক্টরের অধীনে
> বাংলার প্রথম স্বাধীন সুলতান ছিলেন : ইলিয়াছ শাহ্‌
> বাংলাদেশের ক্রীড়া সংগীতের রচয়িতা : সেলিনা রহমান
> বাংলাদেশের সংবিধান রচনা কমিটির প্রধান ছিলেন : ড. কামাল হোসেন
> উপমহাদেশে রেল চলাচল শুরু হয় : ১৮৫৩ সালে
> চিম্বুক পাহাড়ের পাদদেশে বাস করে : মারমা উপজাতি
> মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর অবস্থিত : সেগুনবাগিচা, ঢাকা
> ভারত বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয় : ৬ ডিসেম্বর ১৯৭১
> স্বাধীনতার প্রথম ডাকটিকিটে ছিল : বাংলাদেশের মানচিত্র
> পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় : ২ ডিসেম্বর ১৯৯৭
> বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা কমিশন : কুদরত-ই-খুদা কমিশন
> বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ : সেন্টমার্টিন
> সোনারগাঁওএর পুরাতন নাম : সুবর্ণগ্রাম
> মায়ানমার এর সাথে বাংলাদেশের সীমান- রয়েছে : ৩টি জেলার
> বাংলাদেশের উপকূলের দৈর্ঘ্য : ৭১১ কি. মি.
> তেভাগা আন্দোলনের নেত্রী : ইলা মিত্র
> লালবাগ কেল্লা নির্মাণ করেন : শায়েস্তা খান।  
বিগত পরীক্ষার প্রশ্ন:
> বাংলাদেশের ইক্ষু গবেষণা ইনষ্টিটিউট অবস্থিত : ঈশ্বরদী(২৭ তম BCS)
> বাংলাদেশের পোস্টাল একাডেমী অবস্থিত : রাজশাহী(২৭ তম BCS)
> ঢাকায় বাংলার সর্বপ্রথম রাজধানী হয় : ১৬১০ সালে (১০ তম BCS)
> হরিপুরে তেলক্ষেত্র আবিষকৃত হয় : ১৯৮৬ সালে(১১ তম BCS)
> বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতির নাম : শেখ মুজিবুর রহমান(২৯ তম BCS)
> বাকল্যান্ড বাঁধ যে নদীর তীরে অবস্থিত : বুড়িগঙ্গা(১৩ তম BCS)
> দহগ্রাম ছিটমহল যে জেলায় অবস্থিত : লালমনিরহাট (১৩ তম BCS)
> বাংলার নববর্ষ পহেলা বৈশাখ চালু করেন : সম্রাট আকবর(১০ তম BCS)
> মিশুকের স্থপতি : হামিদুজ্জামান খান(১১ তম BCS)
> মুজিব নগরঅবস্থিত : মেহেরপুর জেলায়(২০ তম BCS)
> সোয়াচ অব নো গ্রাউন্ডহলো : বঙ্গোপসাগরের একটি খাদ্যের নাম(১৭ তম BCS)
> বাংলা একাডেমী প্রতিষ্ঠিত হয় : ১৯৫৫ সালে(১৬ তম BCS)
> পাখি ছাড়া বলাকা ও দোয়েল হচ্ছে : দুটি উন্নত জাতের গম(১০ তম BCS)
> বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার অনুপাত : ১০: ৬ বা ৫ : ৩ (১১ তম BCS)
> জাতীয় স্মৃতি সৌধের স্থপতি : মইনুল হোসেন(১৩ তম BCS)
> সাবাস বাংলাদেশভাস্কর্যটির শিল্পী : নিতুন কুণ্ডু(২৬ তম BCS)
> কান-জীর মন্দিরঅবস্থিত : দিনাজপুরে(২৬ তম BCS)
> বাংলাদেশের একমাত্র কিশোরী সংশোধন প্রতিষ্ঠানটি অবসি'ত : কোনাবাড়ি, গাজীপুর(২৫ তম BCS)
> বাংলাদেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর : বেনাপোল(২৪ তম BCS)
> বাংলা একাডেমীল মূল ভবনের নাম ছিল : বর্ধমান হাউজ(২২ তম BCS)
> বাংলাদেশের সবচেয়ে উত্তরের জেলা : পঞ্চগড়(২২ তম BCS)
> তুলা চাষের জন্য বেশী উপযোগী : যশোর(১১ তম BCS)
> উপমহাদেশের সর্বশেষ গভর্নর জেনারেল ছিলেন : মাউন্টব্যাটেন(১৬ তম BCS)
> বাসসহলো : একটি সংবাদ সংস্থার নাম(১১ তম BCS)
বাংলাদেশ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান প্রস্তুতি :
> উপমহাদেশে শেষ ভাইসরয় ছিলেন : লর্ড মাউন্ট ব্যাটেন।
> ছয় দফা দাবি প্রথম উত্থাপন করা হয় : লাহোরে।
> বাংলাদেশে বর্তমানে যক্ষা রোগে আক্রান্তের হার : লাখে ৭৯ দশমিক ৪
> সুপ্রিম কোর্টে মামলা নিবন্ধনে ই-রেজিস্টারিং চালু করা হয় : ১ জানুয়ারি ২০১১।
> ১৯৭০ খ্রিঃ পূর্ব পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ আসন লাভ করে : ১৬৭টি।
> মুক্তিযুদ্ধে ১নং সেক্টর ছিল : চট্টগ্রাম।
> বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন সংবিধানের কত অনুচ্ছেদ অনুযায়ী গঠিত : ১৩৭
> বাংলাদেশের নদীগুলোর মধ্যে সবচেয়ে দীর্ঘপথ অতিক্রম করেছে : ব্রহ্মপুত্র।
> বাংলাদেশের বিখ্যাত মনিপুরী নাচ : সিলেট অঞ্চলের।
> বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের প্রথম ইংরেজি অনুবাদক : সৈয়দ আলী আহসান।
> বাংলাদেশের জাতীয় দিবস : ২৬ মার্চ।
> বাংলাদেশের সংবিধান সংসদে প্রথম গৃহীত হয় : ৪ নভেম্বর, ১৯৭২
> প্রাচীন গৌড় নগরীর অংশ বিশেষ বাংলাদেশে কোন জেলায় অবস্থিত : চাঁপাইনবাবগঞ্জ।
> চন্দ্র বংশের রাজারা বাংলায় প্রায় শাসন করেন : ১৫০ বছর
> ঢাকা সর্বপ্রথম বাংলার রাজধানী হয়েছিল : ১৬১০ খ্রিস্টাব্দে
> কর্ণফুলী নদীর উৎস ভারতের কোন রাজ্যে : মিজোরাম।
> ক্রিকেটে বাংলাদেশ কোন সালে টেষ্ট মর্যাদা লাভ করে : ২০০০ সালে।
> কোন মুঘল সম্রাট বিদ্রোহ দমনের জন্য দাক্ষিণাত্য নীতি গ্রহণ করেন : সম্রাট আওরঙ্গজেব।
> গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে নির্বাচন কমিশনের কার্যাবলি বর্ণিত রয়েছে : ১১৯ নং অনুচ্ছেদে
> বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে প্রথম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় : ফেব্রুয়ারি ১৯৯১ সালে।
> বাংলাদেশে প্রথম সামরিক আইন জারি করেন : খন্দকার মোশতাক আহমদ।
> ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম প্রো-উপাচার্য ছিলেন : অধ্যাপক ড. মফিজ উল্লাহ কবীর।
> বাংলা একাডেমির ‘আঞ্চলিক অভিধান’ সম্পাদনা করেন : মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ
> প্রথম বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বই মেলা অনুষ্ঠিত হয় : ১৯৭২ সালে।
> বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মধ্যযুগীয় মসজিদ : ষাট গম্বুজ মসজিদ।
> ‘কুমিল্লা বার্ড’ এর প্রতিষ্ঠাতা : আখতার হামিদ খান।
> বাংলাদেশের লোকশিল্প যাদুঘর অবস্থিত : সোনারগাঁ।
> রংপুর আলাদা হবার পর রাজশাহী বিভাগে জেলা আছে : ৮টি।  
> পাহাড়পুরের বৌদ্ধ বিহারের নির্মাতা : ধর্মপাল।
> বাংলা একাডেমির মূল ভবনের নাম : বর্ধমান হাউস।
> ফারাক্কা বাঁধ বাংলাদেশ সীমানা হতে দূরে অবস্থিত : ১৬.৫ কিলোমিটার।
> ‘ইরাটম’ : উন্নত জাতের ধান।
> বাংলাদেশের কোন বনভূমি শাল বৃক্ষের জন্য বিখ্যাত : ভাওয়াল ও মধুপুরের বনভূমি।
> বাংলার নববর্ষ পহেলা বৈশাখ চালু করেন : সম্রাট আকবর।
> আয়তনে বাংলাদেশের বৃহত্তম বিভাগ : চট্টগ্রাম।
> শিক্ষা বিভাগের ট্রেনিং-এর শীর্ষ প্রতিষ্ঠান : নায়েম।
> মূল্য সংযোজন কর বাংলাদেশে চালু করা হয় : ১লা জুলাই ১৯৯১।
> কোন বাংলাদেশী উপজাতির পারিবারিক কাঠামো পিতৃতান্ত্রিক : মারমা।
> উপমহাদেশে পর্তুগীজরা প্রথম আগমন করে : ১৫০৯ খ্রিস্টাব্দে, গোয়ায়।
> ইংরেজ ইষ্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি কোন চুক্তির মাধ্যমে বাংলা, বিহার ও উড়িষ্যার দিউয়ানী লাভ করে : এলাহাবাদ চুক্তি।
> বাংলায় মুসলমানদের মধ্যে আধুনিক শিক্ষা প্রচলনের জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন : নওয়াব আবদুল লতিফ
> ‘ভারতের রাজভক্ত মুসলমান’ গ্রন্থের রচয়িতা : স্যার সৈয়দ আহমদ খান।
> বাঙ্গালী ও যমুনা নদীর সংযোগ : বগুড়া।  
> দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপের অপর নাম : পূর্বাশা দ্বীপ।
> হালদা ভ্যালি অবস্থিত : খাগড়াছড়ি।
> স্বাধীনতার প্রথম ডাকটিকেটে ছবি ছিল : শহীদ মিনার এর
> কোন মুঘল সুবাদার চট্টগ্রাম দখল করে এর নাম রাখেন ইসলামাবাদ : শায়েস্তা খান।

বিগত পরীক্ষার যা এসেছিল :
> বাংলাদেশের ইক্ষু গবেষণা ইনষ্টিটিউট অবস্থিত : ঈশ্বরদী(২৭ তম BCS)
> বাংলাদেশের পোস্টাল একাডেমী অবস্থিত : রাজশাহী(২৭ তম BCS)
> ঢাকায় বাংলার সর্বপ্রথম রাজধানী হয় : ১৬১০ সালে (১০ তম BCS)
> হরিপুরে তেলক্ষেত্র আবিষকৃত হয় : ১৯৮৬ সালে(১১ তম BCS)
> বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতির নাম : শেখ মুজিবুর রহমান(২৯ তম BCS)
> বাকল্যান্ড বাঁধ যে নদীর তীরে অবস্থিত : বুড়িগঙ্গা(১৩ তম BCS)
> দহগ্রাম ছিটমহল যে জেলায় অবস্থিত : লালমনিরহাট (১৩ তম BCS)
> বাংলার নববর্ষ পহেলা বৈশাখ চালু করেন : সম্রাট আকবর(১০ তম BCS)
> মিশুকের স্থপতি : হামিদুজ্জামান খান(১১ তম BCS)
> মুজিব নগরঅবস্থিত : মেহেরপুর জেলায়(২০ তম BCS)
> সোয়াচ অব নো গ্রাউন্ডহলো : বঙ্গোপসাগরের একটি খাদ্যের নাম(১৭ তম BCS)
> বাংলা একাডেমী প্রতিষ্ঠিত হয় : ১৯৫৫ সালে(১৬ তম BCS)
> পাখি ছাড়া বলাকা ও দোয়েল হচ্ছে : দুটি উন্নত জাতের গম(১০ তম BCS)
> বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার অনুপাত : ১০: ৬ বা ৫ : ৩ (১১ তম BCS)
> জাতীয় স্মৃতি সৌধের স্থপতি : মইনুল হোসেন(১৩ তম BCS)
> সাবাস বাংলাদেশভাস্কর্যটির শিল্পী : নিতুন কুণ্ডু(২৬ তম BCS)
> কান-জীর মন্দিরঅবস্থিত : দিনাজপুরে(২৬ তম BCS)
> বাংলাদেশের একমাত্র কিশোরী সংশোধন প্রতিষ্ঠানটি অবসি'ত : কোনাবাড়ি, গাজীপুর(২৫ তম BCS)
> বাংলাদেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর : বেনাপোল(২৪ তম BCS)
> বাংলা একাডেমীল মূল ভবনের নাম ছিল : বর্ধমান হাউজ(২২ তম BCS)
> বাংলাদেশের সবচেয়ে উত্তরের জেলা : পঞ্চগড়(২২ তম BCS)
> তুলা চাষের জন্য বেশী উপযোগী : যশোর(১১ তম BCS)
> উপমহাদেশের সর্বশেষ গভর্নর জেনারেল ছিলেন : মাউন্টব্যাটেন(১৬ তম BCS)
> বাসসহলো : একটি সংবাদ সংস্থার নাম(১১ তম BCS)
বাংলাদেশ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান প্রস্তুতি নং ৩ :
> সম্প্রতি ২০১১ সালে ‘সুন্দরবন’ দিবস পালিত হয় ১৪ : ই ফেব্রুয়ারি ২০১১
> রংপুরকে নতুন বিভাগ ঘোষণা করা হয় : ২৫ জানুয়ারি ২০১০ ।
> এভারেস্ট জয়ী ‘মুসা ইব্রাহীম’ সাঁতরে ‘বাংলা চ্যানেল’ পাড়ি দেন : ৯ ই মার্চ ২০১১
> অনলাইনে সাধারণ ডায়েরি করার নতুন প্রকল্প বন্ধু পুলিশ এর উদ্বোধন : ০৩ মার্চ ২০১০ ।
> বাংলাদেশের সংবিধান দিবস পালিত হয় : ৪ নভেম্বের।
> বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন স্থপতি : ফজলুর রহমান খান।
> জাতীয় সংসদের স্থপতি : লুই আইন কান।
> জাতীয় সংসদের প্রতীক : শাপলা ফুল।
> ঐতিহাসিক দফা ঘোষণা করা হয় : ৫ ফেব্রুয়ারি।
> বাংলাদেশের গণপরিষদের প্রথম স্পিকার : শাহ আব্দুল হামিদ।
> গণপরিষদের প্রথম অধিবেশনের সভাপতি ছিলেন : আব্দুর রশিদ তর্কবাগীশ
> গণপরিষদের প্রথম ডেপুটি স্পিকার ছিলেন : মুহম্মদ উল্লাহ।
> বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় মুজিবনগর ছিল : ৮নং সেক্টরে।
> বাংলাদেশ সংবিধানে শিক্ষার জন্য সাংবিধানিক অঙ্গীকার ত নম্বর ধারায় বর্ণিত আছে : ১৭ নং ধারায়
> ঐতিহ্যবাহী ‘ঝুমুর’ নৃত্য যে অঞ্চলের : রংপুর, রাজশাহী।
> দেশের প্রথম টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয় : ১৫ মার্চ ২০১১
নোট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর তেজগাঁওয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বোধন করেন।১৯২১ সালে নারিন্দায় গড়ে উথা ‘উইভিং স্কুল’ টিকে আজ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে রুপান্তরিত করা হল।
> পদ্মা নদীর মাঝি, মনের মানুষ চলচ্চিত্রের পরিচালক : গৌতম ঘোষ।
> সেন্টমার্টিন দ্বীপের অন্য নাম : নারিকেল জিঞ্জিরা।
> হাকালুকি হাওর অবস্থিত : সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলায়
> বাংলাদেশের বৃহত্তম হাওর : হাকালুকি।
> দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম হাওর : হাকালুকি হাওর।
> বাংলাদেশ জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করে : ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৭৪।
নোট : বাংলাদেশ ১৯৭৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের ১৩৬তম সদস্য হিসেবে সদস্যপদ লাভ করে।
> ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার জন্য গঠিত তৎকালীন কমিশনটির নাম : নাথান কমিশন।
> বাংলাদেশে মুদ্রানীতি পরিচালনার দায়িত্ব : বাংলাদেশ ব্যাংকের।
> বাংলা নববর্ষ চালু করেন : সম্রাট আকবর।
> মিশুকের স্থপতি : হামিদুজ্জামান খান।
> দহগ্রাম ছিটমহল যে জেলায় অবস্থিত : লালমনির হাট।
> বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের প্রথম টেষ্ট অধিনায়ক : নাঈমুর রহমান দুর্জয়।
> বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশের অভিষেক ঘটে : ১৯৯৯ সালের ১৭ মে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।
> বিশ্বকাপ ক্রিকেটে প্রথম অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক : আমিনুল ইসলাম বুলবুল।
> আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো গানটির গীতিকার : আব্দুল গাফফার চৌধুরী।
> বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমী অবস্থিত : চট্টগ্রামে।
> বাংলার রাজধানী ঢাকা থেকে মুর্শিদাবাদ স্থানান্তর করেন : নবাব মুর্শিদকুলি খান।
> বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় সর্বপ্রথম যে এলাকা মুক্ত হয় : যশোর।
নোট : যশোর ১৯৭১ সালের ৭ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময় শক্র মুক্ত হয়।
> দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপ অবস্থিত : সাতক্ষীরায়।
> বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী প্রেসিডেন্ট : সৈয়দ নজরুল ইসলাম।
> ঢাকার ছোট কাটরা নির্মাণ করেন : শায়েস্তা খান।
> বাংলাদেশের মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি অবস্থিত : গাজীপুরে।
> বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের নাম : কক্সবাজার (বাংলাদেশ)।
> বাংলাদেশের সামুদ্রিক বন্দর : ২টি (মংলা ও চট্টগ্রাম)।
> ঢাকার প্রাচীন নাম : জাহাঙ্গীরনগর।
> ‘পঞ্চাশের মনন্তর’ হয়েছিল ইংরেজি : ১৯৪৩ সালে।
> ‘ছিয়াত্তরেরনন্তর’ হয়েছিল বাংলা : ১১৭৬ সালে।
> যে বাংলাদেশি প্রথম ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রম করেন : ব্রজেন দাস।
> টেষ্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি করেন : আশরাফুল (বাংলাদেশ)।
> বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক মন্ত্রণালয় গঠিত হয় : ২০০১ সালে।
> চট্টগ্রামের নাম ইসলামাবাদ রাখেন : শায়েস্তা খাঁ।
> বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টের একজন বিচারপতির অবসর গ্রহণের বয়স : ৬৭ বছর।
> যে নদীর মোহনায় নিঝুম দ্বীপ অবস্থিত : মেঘনা।
> বাংলাদেশের মোট স্থল বন্দর : ১৪টি।
> বাংলাদেশ প্রথম যে অলিম্পিক গেমসে অংশগ্রহণ করে : লস্‌ এঞ্জেলস (১৯৮৪ সাল)।
> দক্ষিণ এশিয়ায় ড. ইউনুস শান্তিতে কততম নোবেল বিজয়ী : ২য় নোবেল বিজয়ী।
> বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো প্রতিষ্ঠিত হয় : ১৯৭৪ সালে।
> খাসিয়া উপজাতি বাংলাদেশের যে জেলায় বাস করে : সিলেট।
নোট : খাসিয়া, মণিপুরী উপজাতি বসবাস করে সিলেট জেলায়; পার্বত্য চট্টগ্রামে- চাকমা, ত্রিপুরা, মারমা, খুমী, মুরং; ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা জেলায়- হাজং, গারো, হাদুই; ইত্যাদি উপজাতি বাস
করে।
> বাংলা একাডেমী পুরস্কার ২০১১ এর জন্য যারা মনোনীত :
এবার ছয় জনকে বাংলা একাডেমী পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়। তাঁরা হলেন-
১। গবেষণায় - অধ্যাপক খান সারওয়ার মুর্শিদ
২। কথা সাহিত্যে - বুলবুল চৌধুরী
৩। কবিতায় - রুবী রহমান ও নাসির আহমেদ (দুই জন)
৪। বিজ্ঞানে - অজয় রায়
৫। শিশু সাহিত্যে - গোলাম কিবরিয়া
> একুশে পদক ২০১১ এর জন্য নির্বাচিত ১৩ জন হলেন :
১। ভাষা আন্দোলনে মরণোত্তর - ভাষা সৈনিক শওকত আলী ও মশারফ উদ্দিন আহমেদ (দুই জন)
২। শিল্পকলায় মরণোত্তর - ওস্তাদ আখতার সাদমানী
৩। গবেষণায় মরণোত্তর - আব্দুল হক চৌধুরী
৪। ভাষা আন্দোলনে জীবিত - আমানুল হক
৫। শিল্পকলায় জীবিত- বাউল করিম শাহ ও যাত্রা শিল্পী জ্যোৎস্না বিশ্বাস (দুই জন)
৬। ভাষা ও সাহিত্যে - শহীদ কাদরী ও আব্দুল হক (দুই জন)
৭। সাংবাদিকতায় - নুরজাহান বেগম
৮। সমাজসেবায় - মোঃ আবুল হাশেম, মোঃ হারেস উদ্দিন পলান সরকার ও মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন (তিন জন)
বিগত পরীক্ষায় যা এসেছিল:
> বাংলাদেশ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদস্য হয় : ১৯৯৫ সালে (২৬তম বিসিএস)।
> বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি ব্যাংক : আরব বাংলাদেশ ব্যাংক (২৬তম বিসিএস)।
> কুমিল্লা বার্ডস এর প্রতিষ্ঠাতা : আখতার হামিন খান (২২তম বিসিএস)।
> বাংলাদেশের বিখ্যাত মণিপুরী নাচ : সিলেট অঞ্চলের (২২তম বিসিএস)।
> বাংলাদেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প : তিস্তা সেচ প্রকল্প (২৬তম বিসিএস)।
> পুনর্ভবা, নাগর ও টাঙ্গন যে নদীর উপনদী : মহানন্দা (২৫তম বিসিএস)।
> দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপের অপর নাম : পূর্বাশা (২৪তম বিসিএস)।
> দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপ অবস্থিত : সাতক্ষীরা জেলার হাড়িয়াভাঙ্গা নদীর মোহনায়
> হালদা ভ্যালী অবস্থিত : খাগড়াছড়ি (২৪তম বিসিএস)।
> বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন সংবিধানের যে অনুচ্ছেদে অনুযায়ী গঠিত : ১৩৭ (২২তম বিসিএস)।
> ‘শাবাশ বাংলাদেশ’ ভাঙ্কর্যটির শিল্পী : নিতুন কুণ্ডু (২৬তম বিসিএস)।
ব্যাখ্যা : নিতুন কুন্ডু ‘শাবাশ বাংলাদেশ’ ভাঙ্কর্যটি (রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়) ছাড়াও সার্ক ফোয়ারা (কারওয়ান বাজার), কদমফুল ফোয়ারা (জাতীয় ঈদগাহ ময়দান), ইত্যাদি ভাষ্কর্য নির্মাণ করেন।