শুক্রবার, ১৭ জুন, ২০১১

বাংলাদেশ বিষয়-০২

বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা
Communication in Bangladesh
মহাখালী ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়?
উঃ ১৯ ডিসেম্বর, ২০০১
মহাখালী ফ্লাইওভারটি গাড়িচলাচল করার জন্য খুলে দেয়া হয়?
উঃ ৪ নভেম্বর, ২০০৪
মহাখালী ফ্লাইওভারের নির্মাণ ব্যয় কত?
উঃ ১১৩ কোটি ৫২ লক্ষ টাকা
মহাখালী ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ কত?
উঃ দৈর্ঘ্য - ৬৬৭.৭৪ মিটার ও প্রস্থ-১৭.৯০ মিটার
মহাখালী ফ্লাইওভারের ম্প্যানের সংখ্যা কতটি?
উঃ ১৯ টি
মহাখালী ফ্লাইওভারের র‌্যাপের দৈর্ঘ্য কত?
উঃ ১৭৭.৭১ মিটার
খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়?
উঃ ২ জুন, ২০০১
খিলগাঁও ফ্লাইওভারটি গাড়িচলাচল করার জন্য খুলে দেয়া হয়?
উঃ ২৩ মার্চ, ২০০৫
খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নির্মাণ ব্যয় কত টাকা?
উঃ ৮১.৭৫ কোটি
খিলগাঁও ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ কত?
উঃ দৈর্ঘ্য - ১৯০০ মিটার ও প্রস্থ-১৪ মিটার
খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নির্মাণ প্রতিষ্ঠান কে?
উঃ বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট কনস্ট্রাকশন লিঃ
ভোমরা স্থল বন্দর কোথায় অবস্থিত ?
উঃ সাতক্ষিরা জেলায়
ঢাকা কলকাতা বাস সার্ভিস চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় কবে?
উঃ ১৮ ফেব্রুয়ারী, ১৯৯৯
ঢাকা কলকাতা বাস সার্ভিস পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল শুরু করে?
উঃ ৬ এপ্রিল, ১৯৯৯
ঢাকা কলকাতা বাস সার্ভিস চালু হয়?
উঃ ৬ জুন, ১৯৯৯
ঢাকা কলকাতা বাস সার্ভিস বানিজ্যিক ভিত্তিতে চালু হয়?
উঃ ৯ জুলাই, ১৯৯৯
ঢাকায় ট্যাক্সি ক্যাব চালূ হয়?
উঃ ৫ জুলাই, ১৯৯৮
ঢাকা মহানগরীর পরিবেশ দূষন নিয়ন্ত্রণে পরিবেশ আদালত গঠন করা হয়?
উঃ ৪ মে, ১৯৯৭
ঢাকা আগরতলা বাস সার্ভিস পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল শুরু করে?
উঃ ১ জুলাই, ২০০১
ঢাকা আগরতলা বাস সার্ভিস বানিজ্যিকভিত্তিতে চালু হয়?
উঃ ১২ জুলাই, ২০০১
বাংলাদেশের কয়টি আন্ডারপাস রয়েছে?
উঃ ৩ টি গুলিস্তান, কারওয়ান বাজার ও গাবতলী
রাজধানীতে টু স্ট্রোক ইঞ্জিন চালিত যানবাহন নিষিদ্ধ করা হয়?
উঃ ১ সেপ্টেম্বর, ২০০২
বাংলাদেশের বৃহত্তম সড়ক সেতু কোনটি?
উঃ বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু, ৪.৮ কি.মি.
বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন কে কবে?
উঃ ১০ এপ্রিল, ১৯৯৪ (প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া)
বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতুর উদ্বোধন করেন কে কবে?
উঃ ২৩ জুন, ১৯৯৮ (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা)
বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতুর নির্মান কাজ শুরু হয়?
উঃ ১৬ অক্টোবর, ১৯৯৪
বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতুর নির্মান ব্যয় কত?
উঃ মোট ৩৯৩৮.৫৫ কোটি টাকা
বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতুর স্প্যানের সংখ্যা কতটি?
উঃ ৪৯ টি।

বাংলাদেশের বিচার বিভাগ
Judiciary in Bangladesh
বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতের নাম কি?
উঃ সুপ্রীম কোর্ট।
সুপ্রীম কোর্টর ডিভিশন কটি ও কি কি
?
উঃ ২ টি। হাইকোর্ট ডিভিশন ও এ্যাপিলেট ডিভিশন।
আপিল বিভাগের বর্তমানে বিচারকের সংখ্যা কত জন
?
উঃ ৭ জন।
কবে ৭ সদস্যের আপিল বিভাগ গঠিত হয়
?
উঃ ১৭ জানুয়ারী, ২০০২।
সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতির কার্যকালের মেয়াদ কত?
উঃ তাদের বয়স ৬৭ বৎসর পূর্ন হওয়া পর্যন্তু।
সুপ্রীম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের সদস্য কারা
?
উঃ প্রধান বিচারপতি ও
 
পরবর্তী দুজন সিনিয়র বিচারপতি।
বিচারপতিদের নিয়োগ করেন কে?
উঃ রাষ্ট্রপতি।
দেশে প্রথম মহিলা অস্থায়ী বিচারপতির নাম কি?
উঃ নাজমুন আরা সুলতানা।
বাংলাদেশে প্রথম অন্ধ পাবলিক প্রসিকিউটর
(পিপি) কে?
উঃ এডভোকেট খাদেমুল ইসলাম।
দেশের প্রথম মহিলা পিপি-র নাম কি
?
উঃ শামীম আরা স্বপ্না|
হাই কোর্টে ফতোয়া কবে বেআইনি বলে রায় দেয়?
উঃ ১ জানুয়ারী, ২০০১।
সুপ্রীম কোর্টে ফতোয়াকে কবে অবৈধ বলে ঘোষনা দেয়?
উঃ ৪ মার্চ, ২০০১।
নির্বাহী বিভাগ থেকে কবে বিচার বিভাগ স্বাধীন পথ চলা শুরু হয়?
উঃ ১ নভেম্বর, ২০০৭।
বিচার বিভাগ
স্বাধীন করতে কে মামলা করেন
?
উঃ মাজদার হোসেনসহ ৪৪০ বিচারক।
মাজদার হোসেন কখন মামলাটি করেন
?
উঃ ১৯ নভেম্বর, ১৯৯৫।
মাজদার হোসেন মামলার বাদি পক্ষের প্রধান আইনজীবি কে ছিলেন
?
উঃ ব্যারিস্টার আমীর-উল-ইসলাম।
কবে হাইকোর্ট মাজদার হোসেনের পক্ষে রায় প্রদান করেন?
উঃ ০৭ মে, ১৯৯৭।
কবে আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বহাল রেখে ১২ দফা নির্দেশনা প্রদান করেন
?
উঃ ১৯৯৯।
বিচার বিভাগ
স্বাধীন করতে বিভিন্ন সরকার কতবার সময় নেয়
?
উঃ ২৭ বার।
স্বাধীন বিচার বিভাগ করতে কতটি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের পদ সষ্টি করা হয়
?
উঃ ৬৫৫ জন (৬০০টি জুডিশিয়াল ও ৫৫টি মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট।
কতজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়ে
স্বাধীন বিচার বিভাগ চালু হয়
?
উঃ ২১৮ জন সহকারী জজ নিয়ে।
জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটদের কিভাবে নিয়োগ প্রদান করা হয়
?
উঃ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে।
জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের সদস্য সংখ্যা কত জন
?
উঃ ১১ জন।
জুডিশিয়াল সার্ভিস পে-কমিশনের সদস্য সংখ্যা কত জন?
উঃ ৯ জন।
মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটদের বিচারিক ক্ষমতা কতটি ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট আছে?
উঃ ২৫টি ক্ষেত্রে।
ব্রিটিশ আমলে সর্ব প্রথম কবে থেকে ফৌজদারী আদালত স্থাপন করা হয়
?
উঃ ১৭৭২ সালে।
ব্রিটিশ আমলে কে কখন নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ সম্পূর্ন
স্বাধীন করে দেন
?
উঃ লর্ড কর্নওয়ালিশ, ১৭৯৩।
ব্রিটিশ আমলে কে কখন আবার নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগ একীভূত করেন
?
উঃ লর্ড হেস্টিংস, ১৮২১।
ব্রিটিশ আমলে কখন দেওয়ানী কাজ ফৌজদারী কাজ থেকে আলাদা করা হয়
?
উঃ ১৮৩১ সালে।
মূল সংবিধানের কত অনুছেদে বিচার বিভাগ আলাদা করার কথা বলা হয়
?
উঃ ২২ অনুছেদে।


বাঙালী জাতির অভ্যুদয় 
Appearance of the Bengali Nations
বাঙ্গালী জাতির পরিচয় কি?
উঃ শংকর জাতি হিসেবে।
বাংলা ভুমি খন্ডের প্রাচীন জনপদগুলোর নাম কি কি?
উঃ গৌড় -(পুণ্ড্র, বরেন্দ্রীয়, রাঢ়), সুহ্ম-(তাম্র, লিপ্পি, সমতট), বঙ্গ-(বঙ্গাল, হরিকেল)
রাজা শশাঙ্কের শাসনামলের পর বঙ্গ দেশ কয়টি জনপদে বিভিক্ত ছিল?
উঃ ৩টি । যথাঃ পুণ্ড্র, গৌড়, বঙ্গ।
প্রাচীন জনপদ পুণ্ড্রের রাজধানীর ধ্বংশাবশেষ বর্তমান বাংলাদেশের কোথায় পাওয়া যায়?
উঃ বগুড়া জেলার মহাস্থানগড়ে।
 
দেশবাচক নাম হিসেবে বাংলা শব্দের ব্যবহার কখন প্রয়োগ হয় ?
উঃ মুসলিম শাসনামলের প্রথম দিকে।
সম্রাট আকবরের আমলে সমগ্র বঙ্গদেশ কি নামে পরিচিতি ছিল ?
উঃ সুবহ-ই-বাঙ্গালাহ নামে।  
ইবহমষধ এবং ইবহমধষ কোন শব্দের রুপান্তর?
উঃ ফারসী বাঙ্গালহ্‌ শব্দের।
কোন গ্রন্থে বাংলা শব্দের প্রথম ব্যবহার হয়েছে?
উঃ আইন-ই-আকবরী গ্রন্থে।
সমগ্র বাংলাদেশ বঙ্গ নামে ঐক্যবদ্ধ হয় কোন আমলে?
উঃ পাঠান আমলে।
প্রাচীন কর্ণসুবর্ণ বলতে কোন অঞ্চলকে বুঝায়?
উঃ আধুনিক মুর্শিদাবাদ জেলার রাঙামাটি গ্রামকে।
আর্যগণ কবে বাংলাদেশে আগমন করে?
উঃ ২০০০ খ্রিঃ পূর্বাব্দে।
আর্যগণ আগমনের পূর্বে এ দেশে কাদের বসবাস ছিল?
উঃ অনার্যদের ।
চীনা পরিব্রাজক হিউ-এন-স্যঙ কবে বাংলায় আগমন করেন ?
উঃ সপ্তম দশকে।
বাংলার শাসন পদ্ধতি সুষ্পষ্ট বিবরণ পাওয়া যায় কোন যুগে ?
উঃ গুপ্ত যুগে।
কোন সম্রাটের আমলে এ দেশে বৌদ্ধ ধর্মের প্রসার ঘটে ?
উঃ সম্রাট অশোকের আমলে।
প্রাচীন সভ্যতার অভ্যুদয় ঘটে কোথায়?
উঃ এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশ।
প্রাচীন বাংলাদেশে কয়টি জনপদ বিভক্ত ছিল ?
উঃ তিনটি জনপদে।
আর্যদের ধর্মগ্রন্থের নাম কি ?
উঃ বেদ।
বৈদিক যুগের শিক্ষার ভাষা কি ছিল ?
উঃ অষ্ট্রিক।
বাংলার আদি জনগোষ্ঠীর কোন ভাষাভাষা ছিল ?
উঃ সংস্কৃত।
সিন্ধু সভ্যতা কোন যুগের?
উঃ তাম্র যুগের।
সিন্ধু সভ্যতা কখন আবিস্কার হয়?
উঃ ১৯২২ সালে।
গৌতম বুদ্ধের জন্ম স্থান কোথায়?
উঃ ি (নেপাল)।